Advertisement
  • দে । শ প্রচ্ছদ রচনা
  • সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২৩

ইডি-র প্রতি অভিষেকের বার্তা, “যদি পারো আমায় থামাও”, ৩ অক্টোবর ইডি-র হাজিরায় নয়, দিল্লির কর্মসূচিতে থাকছেন তৃণমূল নেতা

আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক
ইডি-র প্রতি অভিষেকের বার্তা, “যদি পারো আমায় থামাও”, ৩ অক্টোবর ইডি-র হাজিরায় নয়, দিল্লির কর্মসূচিতে থাকছেন তৃণমূল নেতা

“যদি পারো আমায় থামাও।” আগামী ৩ অক্টোবর ইডি-র তোলবে তিনি হাজিরা দেবেন না। শুক্রবার তাঁর X হ্যান্ডেলে এই ভাবেই যেদিকে বার্তা দিলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর এই পোস্টে তিনি বুঝিয়ে দিলেন, তাঁর কাছে অগ্রাধিকার বাংলাকে বঞ্চনার প্রতিবাদে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব হওয়া। তাই তিনি ইডি-র ডাকে ৩ অক্টোবর, সকাল সাড়ে ১০টায় সিজিও কম্প্লেক্সে যাবেন না। তাঁর গন্তব্য দিল্লির ধর্না।

অভিষেক তাঁর X হ্যান্ডেলে লিখেছেন, “পশ্চিমবঙ্গের বঞ্চনা এবং এর ন্যায্য পাওনার বিরুদ্ধে লড়াই বজায় থাকবে। কোনও বাধা তাঁকে থামাতে পারবে না। পৃথীবির কোনো শক্তি নেই তাঁকে রাখে। মৌলিক অধিকারের জন্য আমার লড়াইকে আমি উৎসর্গ করেছি। কেউ আমার এই লড়াইয়ে  বাধা দিয়ে থামাতে পারবে না। আমি আগামী ২ ও ৩ অক্টোবর দিল্লিতে বিক্ষোভে যোগ দিতে আমি দিল্লি থাকবো। যদি পারো আমাকে থামাও!”

এদিকে অভিষেকেই এই পোস্টকে কেন্দ্র করে সিপিএম নেতা তন্ময় ভট্টাচার্য বলেন, “অভিষেকের এই কর্মসূচি পূর্বঘোষিত। তিনি যে এই জবাব যেদিকে দেবেন সেটা জানাই ছিল। আমার প্রশ্ন এই কর্মসূচি জেনেও ইডি কেন ওই দিনই অভিষেককে হাজিরায় ডাকল? এতেই বিজেপি-তৃণমূল সেটিং প্রমাণ হচ্ছে।”

এদিকে এই প্রসঙ্গে বিজেপি মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য বলেন, “ইডি তদন্ত করছে আদালতের নজরদারিতে। অভিষেক কর্মসূচি থাকায় সেদিন যেতে পারবেন না সেটা তিনি যেদিকে জানালেই হয়ে জেট। তিনি ইডিকে হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন কেন? এই তদন্ত এখন ইডি করছে, তাই অভিষেক ইডিকে কি বললেন তাতে জনসাধারণের কিছু আসে যায় না।”


  • Tags:
❤ Support Us
error: Content is protected !!