Advertisement
  • মা | ঠে-ম | য় | দা | নে
  • মে ৬, ২০২৪

‌মারা গেলেন আর্জেন্টিনার প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের স্থপতি সিজার লুইস মেনোত্তি

আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক
‌মারা গেলেন আর্জেন্টিনার প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের স্থপতি সিজার লুইস মেনোত্তি

মারা গেলেন ১৯৭৮ সালে আর্জেন্টিনার প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের স্থপতি সিজার লুইস মেনোত্তি। বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর। আর্জেন্টিনা ফুটবল ফেডারেশনের পক্ষ থেকে মেনোত্তির মৃত্যুর খবর জানানো হয়েছে। এক বিবৃতিতে ফেডারেশন জানিয়েছে, ‘‌অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে জানানো হচ্ছে যে, আর্জেন্টিনার প্রাক্তন বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন কোচ সিজার লুইস মেনোত্তি মারা গেছেন। তাঁর মৃত্যুতে আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন গভীর ভাবে দুঃখিত।’‌ দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থতায় ভুগছিলেন মেনোত্তি।
১৯৩৮ সালে রোজারিওতে জন্ম মেনোত্তির। ১৯৬৩ থেকে ১৯৬৮ পর্যন্ত তিনি আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের হয়ে খেলেন। দেশের জার্সি গায়ে ১১টির বেশি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাননি। মাত্র ২টি গোল করেছিলেন। ফুটবলারের থেকে কোচ হিসেবেই বেশি জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন মেনোত্তি। খেলা ছাড়ার পর ৩৭ বছরের কোচিং জীবনে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ১১টি ক্লাবকে কোচিং করা। এছাড়া দুটি দেশের জাতীয় দলের কোচের ভূমিকা পালন করেছন।
১৯৭০ সালে আর্জেন্টিনার ক্লাব নিওয়েলস ওল্ড বয়েজে মেনোত্তির কোচিং জীবন শুরু। পরের বছর দায়িত্ব নেন হুরাকানের। ১৯৭৩ সালে প্রথম লিগ শিরোপা। পরের বছর দায়িত্ব নেন আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের। ১৯৭৪ থেকে ১৯৮৩ সাল পর্যন্ত আর্জেন্টিনার কোচের দায়িত্বে ছিলেন। ১৯৯১–১৯৯২ সালে ছিলেন মেক্সিকোর কোচ।
১৯৭৮ সালে আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ জেতানোর জন্য স্মরণীয় হয়ে রয়েছেন মেনোত্তি। বিশ্বকাপ ফাইনালে হল্যান্ডকে ৩–১ ব্যবধানে হারিয়েছিল আর্জেন্টিনা। ফাইনালে জোড়া গোল করেছিলেন মারিও কেম্পেস, যিনি বিশ্বকাপে খেলতে অস্বীকার করেছিলেন। বিশ্বকাপের একবছর আগে জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক ঘটানো ১৭ বছর বয়সী দিয়েগো মারাদনাকে বিশ্বকাপ দলে নেননি মেনোত্তি। যা নিয়ে পরে বিতর্ক তৈরি হয়েছিল।
১৯৭৮ সালে আর্জেন্টিনাকে সিনিয়রদের বিশ্বকাপ জেতানোর পরের বছর অনূর্ধ্ব ২০ বিশ্বকাপেও দেশকে চ্যাম্পিয়ন করেছিলেন মেনোত্তি। তাঁর হাত ধরেই প্রথম অনূর্ধ্ব ২০ বিশ্বকাপেও চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল আর্জেন্টিনা। ওই বিশ্বকাপে সেরা ফুটবলার হয়েছিলেন মারাদোনা। ১৯৮২ বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে আর্জেন্টিনা বিদায় নেওয়ার পর জাতীয় দলের কোচ থেকে সরে দাঁড়ান মেনোত্তি। ১৯৮৩ সালে বার্সিলোনার কোচের দায়িত্ব নেন। সেই সময় মারাদোনা বার্সাতেই খেলতেন। কোপা পা দেল রে এবং স্প্যানিশ সুপার কাপ জিতেছিলেন। বার্সার হয়েই জীবনের শেষ ট্রফি জেতেন মেনোত্তি।
বার্সা অধ্যায় শেষ করে মেনোত্তি ইতালি, মেক্সিকো, উরুগুয়ের ক্লাব ফুটবলে কোচিং করিয়েছেন। ফিরেছিলেন আর্জেন্টিনার ঘরোয়া ফুটবলেও। বোকা জুনিয়র্স, রিভার প্লেট, ইন্দেপেন্দিয়েন্তের মতো আর্জেন্টিনার অন্যতম সেরা তিনটি ক্লাবের কোচের দায়িত্বও পালন করেছেন।  ১৯৯১–১৯৯২ সালে মেক্সিকোকে কোচিং করান। ২০০৭ সালে টেকোসেতে কোচিং জীবন শেষ করেন। আর্জেন্টিনার রাষ্ট্রপতি জাভিয়ের মিলেই এক্স–এ মেনোত্তির মৃত্যুর জন্য শোক জানিয়েছেন। নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের অধিনায়ক লিওনেল মেসি লিখেছেন, ‘আর্জেন্টিনার ফুটবলের অন্যতম গ্রেট আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন। তাঁর পরিবার এবং প্রিয়জনদের প্রতি সমবেদনা। শান্তিতে ঘুমান।’


  • Tags:
❤ Support Us
error: Content is protected !!