Advertisement
  • মা | ঠে-ম | য় | দা | নে
  • সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২৩

‌১১ বছর পর এশিয়া কাপে ভারতকে হারাল বাংলাদেশ

আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক
‌১১ বছর পর এশিয়া কাপে ভারতকে হারাল বাংলাদেশ

ভারতের বিরুদ্ধে জেতা ম্যাচ হাতছাড়া করার ব্যাপারে বাংলাদেশের দারুণ সুনাম আছে। সেই ২০১৫ টি২০ বিশ্বকাপে বেঙ্গালুরুতে শুরু। তারপর বেশ কয়েকবার জেতার কাছাকাছি পৌঁছেও ম্যাচ হাতছাড়া করেছে বাংলাদেশ। শুক্রবার এশিয়া কাপে অবশ্য আর ভুল করেননি সাকিব আল হাসানরা। ভারতকে ৬ রানে হারিয়ে এশিয়া কাপের সুপার ফোরে একমাত্র জয় তুলে নিল বাংলাদেশ। দীর্ঘ ১১ বছর পর এশিয়া কাপে ভারতের বিরুদ্ধে আবার জয়। ব্যর্থতার মাঝে এটাই প্রাপ্তি সাকিবদের।
আগেই ফাইনালের ছাড়পত্র এসে যাওয়ায় এদিন প্রথম একাদশের ৫ ক্রিকেটারকে বিশ্রাম দিয়েছিল ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট। বিরাট কোহলি, হার্দিক পান্ডিয়া, যশপ্রীত বুমরা, কুলদীপ যাদব, মহম্মদ সিরাজরা খেলেননি। টস জিতে বাংলাদেশকে প্রথমে ব্যাট করতে পাঠিয়েছিলেন রোহিত শর্মা। প্রাথমিক ধাক্কা কাটিয়ে ৫০ ওভারে বাংলাদেশ ৮ উইকেটে তোলে ২৬৫ রান। ইনিংসের শুরুতেই বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ। ৫৯ রানের মধ্যে ৪ উইকেট হারায়। ফিরে যান তানজিদ হাসান (‌১৩)‌, লিটন দাস (‌০)‌, আমানুল হক (‌৪)‌, মেহেদি হাসান মিরাজ (‌১৩)‌।
চরম বিপর্যয়ের মুখে বাংলাদেশকে নির্ভরতা দেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ও তৌহিদ হৃদয়। দুজনের জুটিতে ওঠে ১০১ রান। ৮৫ বলে ৮০ রান করে শার্দূল ঠাকুরের বলে আউট হন সাকিব। ৮১ বলে ৫৪ রান করেন তৌহিদ হৃদয়। শেষ দিকে বাংলাদেশকে বড় রানে পৌঁছে দেন নাসুম আমেদ (‌৪৫ বলে ৪৪)‌ ও মাহেদি হাসান (‌২৩ বলে অপরাজিত ২৯)‌। তানজিম হাসান ৮ বলে ১৪ রান করে অপরাজিত থাকেন। ৬৫ রানে ৩ উইকেট নেন শার্দূল ঠাকুর। ৩২ রানে ২ উইকেট মহম্মদ সামির।
জয়ের জন্য ২৬৬ রানের লক্ষ্য নিয়ে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় ভারত। একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের অভিষেক ম্যাচেই দ্বিতীয় বলে রোহিত শর্মাকে (‌২)‌ তুলে নেন তানজিম হাসান। ৩ নম্বরে নামা তিলক ভার্মাও (‌৫)‌ ব্যর্থ। জাজমেন্ট দিয়ে তিনি তানজিমের বলে বোল্ড হন। লোকেশ রাহুল (‌১৯)‌, ঈশান কিষাণ (‌৫)‌, সূর্যকুমার যাদব (‌২৬)‌, রবীন্দ্র জাদেজারা (‌৭)‌ রান পাননি।
একসময় ১৭০ রানে ৬ উইকেট হারায় ভারত। একপ্রান্ত উইকেট পড়লেও অন্যপ্রান্ত আগলে রেখে দলকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন শুভমান গিল। পরে তাঁকে সঙ্গ দেন অক্ষর প্যাটেল। ১৩৩ বলে ১২১ রান করে আউট হন শুভমান। তাঁর ইনিংসে রয়েছে ৮টি ৪ ও ৫টি ৬। শুভমান আউট হওয়ার পর ভারতকে জয়ের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন অক্ষর প্যাটেল ও শার্দূল ঠাকুর। শার্দুল (‌১১)‌ ফইরে যাওয়ার পরপরই আউট হন অক্ষর প্যাটেল। ৩৪ বলে তিনি করেন ৪২। মহম্মদ সামি (‌৬)‌ রান আউট হতেই জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ। ৫০ রানে ৩ উইকেট নেন মুস্তাফিজুর রহমান। অভিষেক ম্যাচে দারুণ বোলিং করে ৩২ রানে ২ উইকেট নেন তানজিম হাসান।


  • Tags:
❤ Support Us
error: Content is protected !!