Advertisement
  • এই মুহূর্তে দে । শ
  • মে ২৮, ২০২৪

দুর্যোগে বিধ্বস্ত উপকূলবর্তী বঙ্গে ত্রানের কাজ কতটা এগোলো ? মুখ্যসচিবের কাছে জানতে চাইলেন মুখ্যমন্ত্রী, দিলেন প্রয়োজনীয় নির্দেশ

আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক
দুর্যোগে বিধ্বস্ত উপকূলবর্তী বঙ্গে ত্রানের কাজ কতটা এগোলো ? মুখ্যসচিবের কাছে জানতে চাইলেন মুখ্যমন্ত্রী, দিলেন প্রয়োজনীয় নির্দেশ

রেমাল ঝড়ে সবচেয়ে বেশি বিধ্বস্ত হয়েছে রাজ্যের তিন জেলা । ভেঙেছে নদী বাধ, একাধিক বাড়ি । ঝড় বিধ্বস্ত মানুষের জন্য ত্রানের কাজ কতটা এগিয়েছে, এনিয়ে মুখ্যসচিবের কাছে রিপোর্ট চাইলেন মুথ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ।

নবান্ন সূ্ত্রে খবর, উত্তর ও দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার উপকূলবর্তী অঞ্চল, সুন্দরবন, পূর্ব মেদিনীপুরে রেমালের ক্ষত গুরুতর । ইতিমধ্যেই দু লক্ষের বেশি মানুষকে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে । সোমবার ঝড়ের প্রকোপ খানিকটা কমতেই, বিপর্যস্ত মানুষদের জন্য ত্রান সহায়তার কাজ শুরু করে রাজ্য প্রশাসন । সরকারি ত্রান কতটা পৌঁছাচ্ছে মানুষের কাছে, তা নিয়েই মুখ্যসচিবের কাছে জানতে চাইলেন মমতা বন্দোপাধ্যায় ।
গতকালই বড়োবাজারে নির্বাচনী সভায় মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, নির্বাচনী বিধি মেনেই রাজ্য প্রশাসনের তর‌ফ থেকে ত্রান ও সরকারি পরিষেবার কাজ শুরু হয়েছে । এবার সেই নিয়েই রাজ্যের মুখ্যসচিব বিপি গোপালিকার কাছ থেকে খোঁজ নিলেন মুখ্যমন্ত্রী । পাশাপাশি এনিয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশও দিয়েছেন তিনি ।

আমফানের মতো ভয়াবহ না হলেও রেমালে বিপর্যস্ত হয়েছে দক্ষিণবঙ্গের বিস্তীর্ণ অঞ্চল । প্রাণ হারিয়েছেন বেশ কিছু মানু‌ষ । নদীবাঁধ ভেঙ্গে প্লাবিত হয়েছে একাধিক অঞ্চল । বাস্তুহারা মানুষ আশ্রয় নিয়েছেন আশ্রয় শিবিরে । সেইসব শিবিরে পর্যাপ্ত ত্রান গেছে কিনা, তা নিয়েও মুখ্যমন্ত্রী এদিন খোঁজ খবর নেন ।


  • Tags:
❤ Support Us
error: Content is protected !!