Advertisement
  • দে । শ
  • এপ্রিল ১, ২০২২

দারুণ খবর! মিরিক লেকেও চলবে শিকারা, গোটা এলাকা সাজাতে নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক
দারুণ খবর! মিরিক লেকেও চলবে শিকারা, গোটা এলাকা সাজাতে নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

ডাল লেকের মতো মিরিকের লেকেও চলবে শিকারা। ইতিমধ্যেই এই ভাবনা-চিন্তা শুরু করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । শুধু তাই নয়, পর্যটকদের আকর্ষণ বাড়াতে লেক সহ সমগ্র মিরিককে সাজিয়ে তুলতে তৎপর হয়েছেন তিনি। তাঁর এই ভাবনায় লাভের মুখ দেখবেন বলে আশা করছেন দার্জিলিংয়ের পর্যটন ব্যাবসায়ীরা।সুন্দর ছবির মতো চা-বাগান, জনপদ, লেক সহ মিরিকের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ভ্রমণ পিপাসু মানুষদের হাতছানি দেয়।কলকাতায় ফিরেই মিরিককে সাজিয়ে তোলার ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রী পদক্ষেপ নেবেন বলে সূত্রের খবর।মিরিককে পর্যটকদের কাছে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে উদ্যোগী হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবারের উত্তরবঙ্গ সফরে একাধিক প্রকল্পের ঘোষণার পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী মিরিকের সৌন্দর্যায়নের ব্যাপারে দার্জিলিঙের জেলাশাসককে নির্দেশ দিয়েছেন বলে সূত্রের খবর। এমনকি তাঁর সফরসঙ্গী, দুই মন্ত্রীকেও মিরিক পরিদর্শনে পাঠান মুখ্যমন্ত্রী ।

জানা গিয়েছে, গত বুধবার মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে রাজ্যের দুই মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস ও ইন্দ্রনীল সেন মিরিক পরিদর্শনে যান। তাঁরা লেক, চা বাগান সহ সমগ্র মিরিক ঘুরে দেখেন। তারপর কোথায়, কী সৌন্দর্যায়ন করা যায়, সে ব্যাপারে পুর চেয়ারম্যান এলবি রাই স্থানীয় প্রশাসনিক আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলেন। প্রশাসনিক আধিকারিকেরা মন্ত্রীদের জানিয়েছেন, কাশ্মীরের ডাল লেকের মতো মিরিকের লেকেও শিকারা চালানোর জন্য দীর্ঘদিন ধরে দাবি জানিয়ে আসছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। মিরিকের লেকে শিকারা চললে স্থানীয়রা যেমন উপার্জনের এক নতুন দিশা পাবেন, তেমনই পর্যটকদের কাছেও আকর্ষণ আরও বাড়বে। ফলে মিরিকের পর্যটন ব্যবসা জমে উঠবে। প্রশাসনিক আধিকারিকদের এই দাবি খারিজ করে দেননি মন্ত্রী মহোদয়। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে বলে তাঁরা আশ্বাস দিয়েছেন। মিরিকের বর্তমান পর্যটন অবস্থা ও কীভাবে আরও সৌন্দর্যায়ন করা যায়, সে ব্যাপারে বিস্তারিত রিপোর্ট দার্জিলিঙে ফিরেই মুখ্যমন্ত্রীকে দেন তাঁরা। এবার কলকাতায় ফিরেই মিরিককে সাজিয়ে তোলার ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রী পদক্ষেপ করবেন বলে সূত্রের খবর।

প্রসঙ্গত, করোনা-পর্ব, লকডাউন কাটিয়ে দীর্ঘদিন পর পর্যটন ব্যবসা জমে উঠেছে পাহাড় থেকে সমুদ্রে। পাহাড়ে তো এখন পর্যটনের ভরা মরশুম। ইদানিংকালে দার্জিলিঙের পাশাপাশি কালিম্পং, কার্শিয়াঙেও পর্যটকদের ভিড় বাড়ছে। মিরিককে মনোরম করে সাজিয়ে তুললে পর্যটকদের ভিড় আরও বাড়বে বলেই মনে করছেন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।


  • Tags:
❤ Support Us
error: Content is protected !!