Advertisement
  • দে । শ বৈষয়িক
  • জুলাই ২৪, ২০২৩

প্রতিভার আরো এক স্বীকৃতি। আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়, ওয়েবেল-এর চেয়ারম্যান

আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক
প্রতিভার আরো এক স্বীকৃতি। আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়, ওয়েবেল-এর চেয়ারম্যান

দক্ষ, অভিজ্ঞ আর নিষ্ঠাবানের কাজের অভাব হয় না। বেগবান স্রোতকে কেউ রুখতে পারে না। পাহাড়ি পাথর সরিয়ে সে নিজেই তৈরি করে নেয় তার অপ্রতিরোধ্য গতিপথ। গুণী গুণের কদর জানে। প্রয়াত উর্দু কবি বশির বদরের এই পর্যবেক্ষণের নিকটতম দৃষ্টান্ত বাংলার প্রাক্তন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়।

আলাপনকে এবার ওয়েবেল-এর চেয়ারম্যান নিযুক্ত করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অর্পিত এই  বাড়তি দায়িত্বের গুরুত্ব বহুমাত্রিক। অবসরের বয়স পেরিয়ে যাওয়ার পর আলাপনের মেয়াদ বৃদ্ধি চেয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। আটকে দেয় কেন্দ্র। তখনই মুখ্যমন্ত্রীর প্রধান উপদেষ্টার পদে আসীন হন তিনি। কিছুদিন পর হেরিটেজ কমিশনের চেয়ারম্যান । এখানেও তাঁর দক্ষতা প্রমাণিত। এতদিন ওয়েস্ট বেঙ্গল ইলেক্ট্রনিক্স ইণ্ডাস্ট্রি ডেভেলপমেন্টের  মনোনীত প্রধান কর্মকর্তা ছিলেন সমর ঝা।

রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস আলাপনের  নিয়োগ নিয়ে সম্মতি জানানোর পর নবান্ন থেকে বিজ্ঞপ্তি জারি করে বলা হয়েছে, আগামী সপ্তাহে ওয়েবেলের দায়িত্ব গ্রহণ করবেন প্রাক্তন মুখ্যসচিব। মুখ্যমন্ত্রীর প্রধান উপদেষ্টার পদেও বহাল রইলেন তিনি। বজায় থাকল হেরিটেজ কমিশন পরিচালনার বাড়তি কর্মকাণ্ড।

রামকৃষ্ণ মিশন, প্রেসিডেন্সি ও কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন কৃতী ছাত্রের কর্মজীবন শুরু হয়েছিল সাংবাদিকতা দিয়ে। পরে,আইএএস-পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে যোগ দেন ভারতীয় সিভিল সার্ভিসে।  আলাপন বিভিন্ন জেলা শাসকের দায়িত্বে যেমন সফল, তেমনি তেরোটি দপ্তরের অভিজ্ঞতায় সমৃদ্ধ তাঁর উত্তরণমুখী কর্মজীবন। দ্বিতীয়ত, কেবল প্রশাসনের চৌহদ্দিতে আটকা পড়েনি তাঁর মেধা; তুখোড় বক্তা আর বিশ্লেষণাত্মক প্রবন্ধকার হিসেবেও সারস্বত সমাজে স্বীকৃত তাঁর সৃজনশীলতা। এমন একজন শাণিত  প্রতিভার নিয়োগে ওয়েবেলের কর্মচাঞ্চল্য বাড়বে, বাড়বে সংস্থার প্রতি সামাজিক আস্থার মানচিত্র।


  • Tags:
❤ Support Us
error: Content is protected !!