Advertisement
  • ন | গ | র | কা | হ | ন প্রচ্ছদ রচনা
  • ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২৪

নরসিমা রাও, চরণ সিং ও স্বামীনাথনকে ভারতরত্ন

আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক
নরসিমা রাও, চরণ সিং ও স্বামীনাথনকে ভারতরত্ন

ভোটের মুখে আবার মাস্টারস্ট্রোক প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির। কিছুদিন আগেই দলিত ভোটের কথা মাথায় রেখেই বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কার্পুরী ঠাকুরকে মরণোত্তর ভারতরত্ন পুরস্কার দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন। কার্পুরী ঠাকুরকে ভারতরত্ন দেওয়ার কথা ঘোষণা করে নীতিশ কুমারকে কাছে টেনেছিলেন। এবার আরও তিনজনকে ভারতরত্ন দেওয়ার কথা ঘোষণা করলেন নরেন্দ্র মোদি। দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী পিভি নরসিমা রাও এবং চৌধুরী চরণ সিংয়ের পাশাপাশি ‘‌সবুজ বিপ্লবের’‌ নায়ক কৃষি বিজ্ঞানী এমএস স্বামীনাথনকে ভারতের সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার দেওয়ার কথা জানিয়েছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী।

শুক্রবার এই তিন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে ভারতরত্ন দেওয়ার কথা ঘোষণা করে প্রধানমন্ত্রী ‘‌এক্স’‌ হ্যান্ডেলে লিখেছেন, ‘‌আমাদের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী শ্রী পিভি নরসিমা রাওকে ভারতরত্ন দিয়ে সম্মানিত করা হবে। এটা জানাতে পেরে আমি আনন্দিত। একজন বিশিষ্ট পণ্ডিত এবং রাষ্ট্রনায়ক হিসাবে নরসিমা রাও বিভিন্নভেবে দেশের সেবা করেছেন। অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এবং বহু বছর ধরে সংসদ ও বিধানসভার সদস্য হিসাবে যে কাজ করেছেন, তার জন্য তিনি সমানভাবে স্মরণীয়। তাঁর দূরদর্শী নেতৃত্ব ভারতকে অর্থনৈতিকভাবে উন্নত করেছিল, দেশের সমৃদ্ধি এবং বৃদ্ধির জন্য একটি দৃঢ় ভিত্তি স্থাপন করেছিল।’‌ তিনি আরও বলেন, ‘‌প্রধানমন্ত্রী হিসাবে নরসিমা রাও ভারতকে বিশ্ববাজারে উন্মুক্ত করেছিল, অর্থনৈতিক উন্নয়নের একটি নতুন যুগকে উৎসাহিত করেছিল৷ ভারতের বিদেশ নীতি, ভাষা এবং শিক্ষা ক্ষেত্রে তাঁর অবদান অনস্বীকার্য। তিনি শুধুমাত্র সমালোচনামূলক পরিবর্তনের মাধ্যমে ভারতকে পরিচালনা করেননি, দেশের সাংস্কৃতিক ও বৌদ্ধিক ঐতিহ্যকেও সমৃদ্ধ করেছেন।’‌

চৌধুরী চরণ সিংকে ভারতরত্ন দেওয়া প্রসঙ্গে মোদি লিখেছেন, ‘‌আমাদের সরকারের সৌভাগ্য যে দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী চৌধুরী চরণ সিংকে ভারতরত্ন দিয়ে সম্মানিত করতে পারছে। দেশের জন্য তাঁর অতুলনীয় অবদানের জন্য এই সম্মান উৎসর্গ করা হল। চৌধুরী চরণ সিং তাঁর সমগ্র জীবন কৃষকদের অধিকার ও কল্যাণে উৎসর্গ করেছিলেন। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী হোক বা দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং এমনকি একজন বিধায়ক হিসেবেও, তিনি সর্বদা দেশ গঠনে প্রেরণা দিয়েছেন। জরুরী অবস্থার বিরুদ্ধেও তিনি অটল ছিলেন। আমাদের কৃষক ভাই ও বোনদের প্রতি নিজেকে উৎসর্গ করা এবং জরুরি অবস্থার সময় গণতন্ত্রের প্রতি তাঁর প্রতিশ্রুতি রক্ষা সমগ্র জাতিকে অনুপ্রাণিত করে।’‌

‘‌সবুজ বিপ্লবের’‌ নায়ক বিজ্ঞানী এমএস স্বামীনাথন সম্পর্কে মোদি বলেন, ‘‌কৃষি ও কৃষকদের কল্যাণে দেশে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ডক্টর এমএস স্বামীনাথন জিকে ভারতরত্ন প্রদান করছে সরকার। তিনি চ্যালেঞ্জিং সময়ে ভারতকে কৃষিতে স্বনির্ভরতা অর্জনে সহায়তা করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন। ভারতীয় কৃষিকে আধুনিকীকরণের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য অসামান্য প্রচেষ্টা করেছিলেন। আমরা একজন উদ্ভাবক এবং পরামর্শদাতা হিসাবে তার অমূল্য কাজকে স্বীকৃতি দিয়েছি।’‌ প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘‌স্বামীনাথনের দূরদর্শী নেতৃত্ব শুধু ভারতীয় কৃষিকেই বদলে দেয়নি বরং দেশের খাদ্য নিরাপত্তা ও সমৃদ্ধিও নিশ্চিত করেছে। স্বামীনাথনকে আমি খুব কাছ থেকে দেখেছি। আমি সবসময় তাঁর চিন্তাভাবনা এবং পরামর্শকে গুরুত্ব দিয়ে এসেছি।’‌


  • Tags:

Read by:

❤ Support Us
Advertisement
homepage block Mainul Hassan and Laxman Seth
Advertisement
homepage block Mainul Hassan and Laxman Seth
Advertisement
শিবভোলার দেশ শিবখোলা স | ফ | র | না | মা

শিবভোলার দেশ শিবখোলা

শিবখোলা পৌঁছলে শিলিগুড়ির অত কাছের কোন জায়গা বলে মনে হয় না।যেন অন্তবিহীন দূরত্ব পেরিয়ে একান্ত রেহাই পাবার পরিসর মিলে গেছে।

সৌরেনি আর তার সৌন্দর্যের সই টিংলিং চূড়া স | ফ | র | না | মা

সৌরেনি আর তার সৌন্দর্যের সই টিংলিং চূড়া

সৌরেনির উঁচু শিখর থেকে এক দিকে কার্শিয়াং আর উত্তরবঙ্গের সমতল দেখা যায়। অন্য প্রান্তে মাথা তুলে থাকে নেপালের শৈলমালা, বিশেষ করে অন্তুদারার পরিচিত চূড়া দেখা যায়।

মিরিক,পাইনের লিরিকাল সুমেন্দু সফরনামা
error: Content is protected !!