Advertisement
  • এই মুহূর্তে দে । শ
  • জুন ১, ২০২৪

নির্বাচনেও কৃত্তিম বু্দ্ধিমত্তার ছায়া, ইজরাইলি সংস্থার বিরুদ্ধে উঠল অভিযোগ

আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক
নির্বাচনেও কৃত্তিম বু্দ্ধিমত্তার ছায়া, ইজরাইলি সংস্থার বিরুদ্ধে উঠল অভিযোগ

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে হস্তক্ষেপের চেষ্টা করেছিল ইজরাইলের এক রাজনৈতিক প্রচারণা ব্যবস্থাপনা সংস্থা। এমনই জানিয়েছে চ্যাটজিপিটির নির্মাতা ওপেন এআই। নিজেদের ওয়েবসাইটের এক প্রতিবেদনে ওপেন এআই বলেছে যে, STOIC নামে ইজরাইলের একটা রাজনৈতিক প্রচারণা ব্যবস্থাপনা সংস্থা গাজা সংঘর্ষের পাশাপাশি ভারতীয় লোকসভা নির্বাচনের ওপর কিছু বিষয়বস্তু তৈরি করেছিল।

ওপেন এআই এর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, “মে মাসে STOIC নামে ইজরাইলের রাজনৈতিক প্রচারণা ব্যবস্থাপনা সংস্থাটি ভারতের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ক্ষমতাসীন বিজেপি দলের সমালোচনা করতে শুরু করে এবং কংগ্রেসের প্রশংসা করতে থাকে। আমরা মে মাসে নির্বাচন শুরু হওয়ার ২৪ ঘন্টারও কম সময়ের মধ্যে তাদের কিছু কার্যকলাপকে প্রতিরোধ করতে সক্ষম হয়েছি।”

ওপেন এআই আরও জানিয়েছে যে, “এই নেটওয়ার্কটি ইজরায়েল থেকে পরিচালিত অ্যাকাউন্ট। যা এক্স, ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, ওয়েবসাইট এবং ইউটিউবে প্রভাব বিস্তারের জন্য সামগ্রী তৈরি করতে এবং সম্পাদনা করতে ব্যবহার করা হয়েছিল। এই অপারেশনটি কানাডা, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ইজরাইলের দর্শকদের লক্ষ্য করে ইংরেজি এবং হিব্রু ভাষায় করা হয়েছিল। মে মাসের শুরুর দিকে ইংরেজি ভাষায় ভারতীয় দর্শকদের টার্গেট করা হয়।”

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখর এই প্রয়াসকে দেশের গণতন্ত্রের জন্য বিপদজনক বলে অভিহিত করেছেন। তিনি বলেছেন, “এটা একেবারে পরিষ্কার এবং সুস্পষ্ট যে কিছু ভারতীয় রাজনৈতিক দল কিংবা তাদের পক্ষ থেকে বিদেশীদের কাছে ভুল তথ্য দেওয়া এবং বিদেশীদের হস্তক্ষেপ করা লক্ষ্য ছিল। এটা আমাদের গণতন্ত্রের জন্য অত্যন্ত বিপদজনক। এটা স্পষ্ট যে ভারতে এবং বাইরের স্বার্থ এটাকে চালিত করেছে। এর গভীর তদন্ত করা দরকার।”

ওপেন এআই বলেছে যে, তাদের সংস্থা নিরাপদ এআই বিকাশ অপব্যবহার রোধে নীতি প্রয়োগ করা ও এআই উৎপন্ন সামগ্রী আরও উন্নতি করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। গত তিন মাসে আমরা পাঁচটি গোপন এও ব্যবহার করেছি, যেগুলি ইন্টারনেট জুড়ে প্রতারণামূলক কার্যকলাপের সমর্থনে আমাদের মডেলগুলি ব্যবহার করতে চেয়েছিল”


  • Tags:
❤ Support Us
error: Content is protected !!