Advertisement
  • এই মুহূর্তে দে । শ
  • নভেম্বর ৪, ২০২৩

নির্বাচনী সভা থেকে নরেন্দ্র মোদির বড় ঘোষণা, “আগামী পাঁচ বছর দেশের ৮০ কোটি মানুষকে বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হবে”

আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক
নির্বাচনী সভা থেকে নরেন্দ্র মোদির বড় ঘোষণা, “আগামী পাঁচ বছর দেশের ৮০ কোটি মানুষকে বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হবে”

আগামী পাঁচ বছর দেশের ৮০ কোটি মানুষকে বিনা মূল্যে রেশন দেওয়ার কথা ছত্তিশগড় ও মধ্যপ্রদেশ থেকে ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আবারও পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের মুখে দাঁড়িয়ে ছত্তিশগড় ও মধ্যপ্রদেশের নির্বাচনী প্রচার মঞ্চ থেকে দেশের ৮০ কোটি মানুষের মুখে খাবার তুলে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেন নরেন্দ্র মোদি। মানুষের মুখে খাবার তুলে দেওয়ার ঘোষণা বড় বিষয়। তবে দেশের ৮০ কোটি মানুষ কী তাহলে রেশন নির্ভর হয়েই থাকবে আরও আগামী পাঁচ বছর? প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণার পর সারা দেশের বিজেপি বিরোধীরা এই প্রশ্ন তুলেছেন। বিরোধীরা বলছেন, মানুষকে খাদ্যের অধিকার নিশ্চিত করা ভালো বিষয় তবে সেটা নরেন্দ্র মোদি পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা ও ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচনের আগে নির্বাচনী মঞ্চ থেকে না করলেই পারতেন।

সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়ে বলেছেন, “দেশের খাবারের গুদামে দেশের চাহিদার তুলনায় অনেক বেশি খাদ্য মজুত থাকে। সেগুলো পঁচে যায়। তার পর তা দিয়ে মদ বানানো হয়। নরেন্দ্র মোদির ঘোষণা ভালো বিষয়, তবে সাধারণ মানুষ ঘোষণা মতো রেশন পাবে তো? আর এটা এতো বড় করে ঘোষণার কি আছে? সরকারের তো এটা কর্তব্য।”

ছত্তিশগড়ের রায়পুরের এক জনসভায় শনিবার প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি, বিজেপি সরকার দেশের ৮০ কোটির বেশি দরিদ্র মানুষকে বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার প্রকল্প আরও ৫ বছর বাড়িয়ে দেবে। মানুষের ভালবাসা এবং আশীর্বাদ সব সময় আমাকে পবিত্র সিদ্ধান্ত নেওয়ার শক্তি দেয়।’’ নরেন্দ্র মোদির এই ঘোষণার শেষ অংশে আছে যে তিনি বিনা পয়সায় রেশন দেবেন তার পরিবর্তে তাদের মানুষকে ভোট দিতে হবে। আর এই ভোটের শক্তিতে শাক্তশালী হয়ে বিজেপি কেন্দ্রে সরকার বানাবে এবং সেই সরকার আগামী পাঁচ বছর দেশের ৮০ কোটি মানুষকে রেশন দেবে বিনা মূল্যে। এটাও এক রকমের পাইয়ে দেওয়ার রাজনীতি।

মোদির এই ঘোষণার পর শনিবার ছত্তিশগড়ের নির্বাচনী প্রচার সভা থেকে কংগ্রেস সাংসদ ও লোকসভার বিরোধী দলনেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী বলেন, “এসব আগে না বলে নরেন্দ্র মোদি নির্বাচনের মুখে এসে বলছেন কেন? এতদিন বলার সময় হয়নি?”

প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনা প্রকল্প হয়েছিল ২০২০ সালের করোনা মহামারীর সময়। এই  মাধ্যমে দেশের সরকার দেশবাসীকে ৫ কেজি পর্যন্ত খাদ্যশস্য বিনামূল্যে সরবরাহ করার ঘোষণা করেছিল।
শনিবারের জনসভায় ভাষণ দেওয়ার সময় নরেন্দ্র মোদি ছত্তিশগড়ের ক্ষমতাসীন কংগ্রেস সরকারকেও কটাক্ষ করেছেন। ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেলের নাম না করে অনলাইনে বেআইনি বেটিং চালানোর অ্যাপ ‘মহাদেব বেটিং অ্যাপ’ নিয়ে কংগ্রেসকে আক্রমণ করেন। প্রচারসভায় উপস্থিত জনতার উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “এই রাজ্যের কংগ্রেস সরকার আপনাদের লুট করতে কোনও সুযোগই ছাড়ছে না। এমনকি মহাদেবের নামে লুট করতেও ছাড়ছে না তারা।” এর পাশাপাশি, দুর্নীতিগ্রস্তদের হুঁশিয়ারি দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “যাঁরা ছত্তিশগড়কে লুট করেছে, তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রতি পয়সার হিসাব তাঁদের থেকে বুঝে নেওয়া হবে।” তবে প্রধানমন্ত্রীর আগামী ৫ বছর বিনা মূল্যে ৮০ কোটি দেশবাসীকে রেশন দেওয়ার ঘোষণা শুধু পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনকে মাথায় রেখে নয়, বরং ২০২৪-এর নির্বাচনের দিকে তাকিয়েই প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণা।


  • Tags:
❤ Support Us
error: Content is protected !!