Advertisement
  • ভা | ই | রা | ল স | হ | জ | পা | ঠ
  • আগস্ট ১, ২০২৩

রাতের আকাশে বিশালাকায় চাঁদ। একমাসে জোড়া সুপারমুন দেখবে বিশ্ববাসী

আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক
রাতের আকাশে বিশালাকায় চাঁদ। একমাসে জোড়া সুপারমুন দেখবে বিশ্ববাসী

চাঁদ নিয়ে মানুষের রোম্যান্টিকতার শেষ নেই। সেই আদ্যিকাল থেকেই পৃথিবীর এই একমাত্র উপগ্রহের সঙ্গে বিশ্ববাসীর তৈরি হয়েছে চাওয়া-না পাওয়ার এক জটিল সম্পর্ক। চন্দ্রকলার হ্রাস-বৃদ্ধি দেখে দেখে মুগ্ধ হয়নি এমন ব্যক্তির সংখ্যা বেশ কম। এই বিস্মিত হওয়ার পরিমাণ আরো বাড়তে পারে আগস্ট মাসে। কারণ একই মাসে এবার দুটি পূর্ণিমা। তবে তা সাধারণ ঘটনা নয়। দুদিনই স্বাভাবিকের তুলনায় বৃহৎ আকারে ধরা দেবে চন্দ্র।  যা  সুপারমুন নামে পরিচিত।

দীর্ঘ পাঁচ বছর পত্র আবার একই মাসে দুটি সুপারমুন দেখবে বিশ্ব। আজকের পর আবার ১৪ বছর পর অর্থাৎ ২০৩৭ সালে এমন মহাজাগতিক ঘটনা ঘটবে বলে জানিয়েছেন জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা। স্বাভাবিক কারণেই মহাকাশ প্রেমীদের মধ্যে এ নিয়ে এক কৌতূহল তৈরি হয়েছে। সূর্যের আলোতে উজ্জ্বল চাঁদ যখন পৃথিবীর সবচেয়ে কাছের চলে আসে, তখন এটি বিশালাকারে দেখা যায়। সে ঘটনাই ঘটবে এবার। সাধারণত, চাঁদ ও পৃথিবীর মধ্যে  দুরত্ব ন্যূন্তম হলে  এমন  অবস্থা হয়। ভারতের পাশাপাশি বাংলাদেশ থেকেও দেখা যাবে এমন বিরল দৃশ্য। আকাশ মেঘমুক্ত থাকলে সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত এমন ঘটনার সাক্ষী থাকবেন সাধারণ মানুষ।

চাঁদ সম্পর্কিত একটি খুব বিরল ঘটনা হল সুপারমুন, যা আপনি বছরে মাত্র  কয়েকবারই দেখতে পাওয়া যায়। যেদিন সুপার মুন দেখা যায়, সেদিন চাঁদের আকার  অন্যান্য দিনের  তুলনায় অনেক বড় দেখায়। একটি সুপার মুন দুটি ভিন্ন ঘটনার প্রভাবের সংমিশ্রণ। যখন চাঁদ সূর্যের আলোই  সম্পূর্ণ আলোকিত হয়ে  পৃথিবীর সবচেয়ে কাছে আসে , তখন সেটি বড়ো আকারে দেখা দেয়।  যা  পূর্ণিমা নামে পরিচিত। সেসময়  পূর্ণিমার চন্দ্র আর  পৃথিবীর  ব্যবধান গিয়ে দাঁড়ায় ২২৪৮৬৫ মাইল।

চাঁদ যে পথে পৃথিবীর চারপাশে  পরিক্রমণ করে সেটি  পুরোপুরি গোলাকার নয়। অনেকটা ডিম্বাকৃতি, যাকে বলে উপবৃত্তাকার। ফলে পৃথিবীর চারদিকে ঘুরতে ঘুরতে চাঁদ কখনও পৃথিবীর কাছে চলে আসে আবার কখনও দূরে চলে যায়। পৃথিবীর চারদিকে  এক বার  ঘুরতে তার গড়ে সময় লাগে সাড়ে সাতাশ দিন।  যেসময়ের মধ্যে এক বার পৃথিবীর কাছে চলে আসে সে  এবং আবার দূরে চলে যায়। এরকমভাবে পাক খেতে খেতেযখন  চাঁদ পৃথিবীর সবচেয়ে কাছাকাছি বিন্দুতে  চলে আসে, সে সময়  তাকে  আরও বড় ও উজ্জ্বল দেখায়। একে জ্যোতির্বিজ্ঞানের পরিভাষায় বলে, ‘পেরিজি’। সবচেয়ে কাছে আসে বলেই চাঁদকে দেখতে তখন সবচেয়ে বড় লাগে। এই ঘটনাটিকেই জ্যোতর্বিজ্ঞানের ভাষায় বলা হয়  ‘সুপারমুন’।

পৃথিবী থেকে চাঁদের দূরত্ব থাকে ৩ লক্ষ ৮৪ হাজার কিলোমিটার। পেরিজিতে এই দূরত্ব কমে হয় ৩ লক্ষ ৫৬ হাজার কিলোমিটার আর এপোজিতে হয় ৪ লক্ষ ৫ হাজার কিলোমিটার। মঙ্গলবার চাঁদ ওই পেরিজি বিন্দুর কাছে পৌঁছবে। এদিন চাঁদের থেকে পৃথিবীর দূরত্ব হবে প্রায় ৩ লক্ষ ৫৭ হাজার ৫৩০ কিলোমিটার।  আকাশ মেঘাচ্ছন্ন না হলে  কলকাতা থেকে পরিষ্কার দেখা যাবে সুপারমুন।


  • Tags:
❤ Support Us
error: Content is protected !!