Advertisement
  • দে । শ
  • ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩

প্রাক্তন বান্ধবীকে লাঞ্ছিত করেও শাস্তির হাত থেকে বেঁচে গেলেন কিরগিওস

আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক
প্রাক্তন বান্ধবীকে লাঞ্ছিত করেও শাস্তির হাত থেকে বেঁচে গেলেন কিরগিওস

প্রাক্তন বান্ধবীকে লাঞ্ছিত করার অপরাধে দোষী সাব্যাস্ত হলেন অস্ট্রেলিয়ার টেনিস তারকা নিক কিরগিওস। যদিও তাঁকে কোনও শাস্তির মুখে পড়তে হচ্ছে না। শুক্রবার ক্যানবেরার ম্যাজিস্ট্রেট কিরগিওসের আচরণকে ‘‌মূর্খতার পরিচয়’‌ বলে আখ্যা দিয়েছেন তাঁর বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছেন।
কিরগিওস প্রাক্তন বান্ধবী চিয়ারা পাসারিকে ২০২১ সালের ১০ জানুয়ারি উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ের পরে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেন। তারপর দুজনের মধ্যে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। ওই ঘটনার দশ মাস পরে পাসারি পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন। এরপর ক্যানবেরা ম্যাজিস্ট্রেট কিরগিওসকে শুনানির জন্য আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন। ক্যানবেরা আদালতে হাজির হয়ে পাসারিকে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেওয়ার কথা স্বীকার করেন কিরগিওস।
পাসারি আদালতে জানান যে, কিরগিওসের ধাক্কায় তিনি মাটিতে পড়ে গিয়ে গুরুতরভাবে আঘাত পেয়েছিলেন এবং তাঁর ওজন অনেকটাই কমে গিয়েছিল। দীর্ঘদিন বিছানায় শয্যাশায়ী ছিলেন। রাত্রিতে ঘুমাতে পর্যন্ত পারতেন না। কিন্তু পাসারি তাঁর সেই অভিযোগের কোন প্রমাণ দিতে পারেননি।
কিরগিওসের আইনজীবীরা আদালতে ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে জানান, এটা একটি সাধারণ ঘটনা। মানসিক কারণেই কিরগিওস পাসারিকে উত্তপ্ত তর্ক বিনিময়ের পরে আঘাত করেছিলেন। কিরগিওস মানসিক ভারসাম্যহীনতায় ভুগছিলেন। সেই জন্যই পাসারিকে আক্রমণ করেন। ম্যাজিস্ট্রেট বেথ ক্যাম্বেল আইনজীবীদের আবেদন শুনে শেষ পর্যন্ত অভিযোগ খারিজ করে দেন।


  • Tags:
❤ Support Us
error: Content is protected !!