Advertisement
  • এই মুহূর্তে দে । শ
  • সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২৩

অভিষেকের জেরা চলাকালীন তৃণমূল সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখল, “আমরা ভীত নই”

আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক
অভিষেকের জেরা চলাকালীন তৃণমূল সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখল, “আমরা ভীত নই”

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় বুধবার সিজিও কমপ্লেক্সে ইডির গোয়েন্দারা যখন তৃণমূলের দ্বিতীয় ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে, তখনই তৃণমূলের তরফে দলের X হ্যন্ডেলে লেখা হল, WE ARE NOT SCARED.
অর্থাৎ তৃণমূল কংগ্রেস সাংগঠনিক ভাবে বলতে চাইছে, কোনও অবস্থাতেই তাদের দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদককে ইডি জিজ্ঞাসাবাদ করায় তারা ভীত নয়।

এর আগেও আমরা বহুবার শুনেছি, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বিভিন্ন সভা থেকে বলেছেন, “আমার বিরুদ্ধে কোনও দোষ প্রমাণ হলে আমি নিজেই ফাঁসির দড়ি গলায় পরে নেব।” অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই নির্ভীকতাই এবার প্রতিফলিত হল তাঁর দলের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলে।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসের অনুষ্ঠানে ধর্মতলা থেকে বলেছিলেন, আমার কাছে একজন মেসেজ করে বলছে, অভিষেককে ইলেকশনের আগে অ্যারেস্ট করবে। কেন ও করেছেটা কী? আসলে ওরা যুবশক্তিকে উঠতে দিতে চায় না। আমি বলছি, যুবশক্তি এর প্রতিবাদ করবে।

এবার কী তৃণমূল সুপ্রিমোর নির্দেশেই তৃণমূল প্রতিবাদে সরব হল সোশ্যাল মিডিয়ায়!

এদিকে এই প্রসঙ্গে বিরোধীরা বলছে, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলছেন, তাঁর বিরুদ্ধে দোষ প্রমাণ হলে তিনি নিজেই ফাঁসির দড়িতে গলা দেবেন, অন্যদিকে তিনিই ইডি,সিবিআই-র হাত থেকে রক্ষা কবচ পাওয়ার জন্য কেন বারবার দৌড়চ্ছেন আদালতে?

এদিকে তৃণমূলের কামারহাটির বিধায়ক বলেন, “ইডি-সিবিআই ডাকা মানে রাজনৈতিক নেতাদের স্টেটাস বেড়ে যাওয়া, এটা একটা স্টেটাস সিম্বল। যেমন উকিলরা আদালতে যায়, পুরোহিত মন্দিরে যায়, ঠিক তেমন।”

এদিকে মদন মিত্রর এই মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে বিজেপি সাংসদ দিলীপ ঘোষ বলোন, “আগে স্বাধীনতা সংগ্রামীরা আন্দোলন করে জেলে যোতেন, এখন দুর্নীতি করে জেলে যাচ্ছে।”

তবে এই প্রথম শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় ইডির জেরায় গেলেন অভিষেক। এদিকে “ইন্ডিয়া” জোটের সমন্বয় বৈঠকে অভিষেক যেতে না পারায় “ইন্ডিয়া” জোটের নেতা সঞ্জয় রাউত বলেন, বিজেপি চায় না অভিষেক ইন্ডিয়ার সমন্বয় বৈঠকে আসুন। তাই ইডি আজ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে আজই জেরায় ডেকেছে। আমরা ওনার চেয়ারটা ফাঁকা রেখে প্রতিবাদ জানাব।”
এদিকে বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষ বলেন, “আগামী দিনে আরও অনেক চেয়ার ফাঁকা থাকবে।”
তবে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের মামলায় ইডির ওপর তাঁর কোনও ভরসা নেই, এমনটাই দাবি করেছেন শুভেন্দু অধিকারী।


  • Tags:
❤ Support Us
error: Content is protected !!