Advertisement
  • এই মুহূর্তে দে । শ
  • জুলাই ৪, ২০২৩

লোডশেডিংয়ে বাজিমাত, খেলা রুখতে তৎপর রাজ্য বিদ্যুত বন্টন সংস্থা । নির্বাচনের আগে ও পরে ছুটি বাতিলের ঘোষণা

আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক
লোডশেডিংয়ে বাজিমাত, খেলা রুখতে তৎপর রাজ্য বিদ্যুত বন্টন সংস্থা । নির্বাচনের আগে ও পরে ছুটি বাতিলের ঘোষণা

রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে রাজ্যের শাসক দলের অভিযোগ তিনি লোডশেডিংয়ের বিজেতা। তাই পঞ্চায়েত নির্বাচনে এই লোডশেডিংয়ের পুনরাবৃত্তি যাতে না হয়, সেই ব্যবস্থা নিল পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য বিদ্যুৎ বন্টন সংস্থা।

৮ জুলাই রাজ্যে এক দফায় পঞ্চায়েত নির্বাচন। তাই ভোটের দিন, ভোটের আগে ও পরে যাতে লোডশেডিং না হয় সেদিকে বিশেষভাবে নজর রাখছে রাজ্য বিদ্যুৎ বণ্টন সংস্থা। সেই দিকে তাকিয়েই এবার পঞ্চায়েত নির্বাচনের দিন মানে ৮ জুলাই বিদ্যুৎ দফতরের কর্মী আধিকারিকদের ছুটি বাতিল করা হল।

রাজ্য বিদ্যুৎ বন্টন সংস্থা সূত্রে জানা গেছে, ভোটের পরের দিন পর্যন্ত ছুটি বাতিলের এই নির্দেশ জারি থাকবে। কারণ লোডশেডিং যাতে না হয় সেটা নিশ্চিত করাই বিদ্যুৎ দফতরের কাছে এখন সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ।

শাসকদল তৃণমূল মনে করে, ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্রে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে শুভেন্দু অধিকারী নির্বাচনে জিতেছেন লোডশেডিং করে এবং লোডশেডিংয়ের সুযোগ নিয়ে ইভিএম-এ কারচুপি করে। তার ফলেই শুভেন্দু অধিকারী আজ বিধায়ক তথা রাজ্যের বিরোধী দলনেতা।

তাই এবার আর পঞ্চায়েত ভোটে সেই ঝুঁকি নিতে চাইছে না রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল। তাই লোডশেডিং যাতে না হয় তার জন্য যাবতীয় আগাম প্রস্তুতি নিচ্ছে রাজ্য বিদ্যুৎ বণ্টন সংস্থা। ভোটের দিন যাতে কোনও ভাবেই বিদ্যুৎ পরিষেবা ব্যাহত না হয় সেটা একেবারে সর্বতোভাবে নিশ্চিত করতে চাইছে বিদ্যুৎ দফতর। আমরা জানি পঞ্চায়েত ভোট মানেই গ্রামীণ ভোট। কলকাতার পাশাপাশি গ্রামীণ এলাকায় লোডশেডিং তুলনায় অনেকটাই বেশি হয়। তাই ভোটের দিন কারেন্ট অফ হয়ে গেলে সমস্যা বাড়বে বই কমবে না, সেকারণেই এই আগাম প্রস্তুতি।

কেননা সরকার বুঝে গেছে লোডশেডিং হলে ব্যালট বক্সের সুরক্ষা নিয়ে প্রশ্ন উঠে যাবে। সেকারণেই আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা।
আর তাই বিদ্যুৎ বন্টন  সংস্থা লো টেনশন ও হাই টেনশন মোবাইল ভ্যানগুলোকে সর্বক্ষণের জন্য তৈরি রাখার উদ্যোগ নিয়েছে। রাজ্য বিদ্যুৎ বন্টন সংস্থার নির্দেশে উল্লেখ করা হয়েছে, ডিভিশনাল ম্যানেজার, রিজিওনাল ম্যানেজার, সহকারি ইঞ্জিনিয়ার, কাস্টমার কেয়ার কেন্দ্র, স্টেশন ম্যানেজাররা ভোটের দুদিন আগে থেকে কেউই তাঁদের সংশ্লিষ্ট দায়িত্ব ছেড়ে ছুটিতে যেতে পারবেন না। কেননা কোনওভাবে বিদ্যুৎ বিভ্রাট  বা ট্রান্সফর্মারে সমস্যা দেখা দিলে টেকনিশিয়ানদের গাড়ি নিয়ে দ্রুত সংকটের জায়গায় ছুটতে হতে পারে। তাই বিদ্যুৎ বন্টন সংস্থার গাড়ি চালক ও টেকনিশিয়ানদের পঞ্চায়েত নির্বাচনের জন্য জরুরি ভিত্তিতে তৈরি থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এখন দেখা যাক এতো কিছু করেও ভোটের দিন ও তার আগের এবং পরের দিন লোডশেডিং বন্ধ করতে রাজ্য বিদ্যুৎ বন্টন সংস্থা সক্ষম হয় কি না!


  • Tags:
❤ Support Us
error: Content is protected !!