Advertisement
  • এই মুহূর্তে ন | গ | র | কা | হ | ন
  • ডিসেম্বর ২৯, ২০২৩

অযোধ্যা “রামময়”, সেজে উঠছে সরযূর তীর। উদ্বোধন ঘিরে হবে ৫০ হাজার কোটির ব্যবসা, অনুমান কনফেডারেশন অফ অল ইন্ডিয়া ট্রেডার্সের

আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক
অযোধ্যা “রামময়”, সেজে উঠছে সরযূর তীর। উদ্বোধন ঘিরে হবে ৫০ হাজার কোটির ব্যবসা, অনুমান কনফেডারেশন অফ অল ইন্ডিয়া ট্রেডার্সের

অযোধ্যা জুড়ে এখন রাজসূয় যজ্ঞের আবহ। অযোধ্যা ধাম জংশন স্টেশন ও মহর্ষি বাল্মিকীর নামাঙ্কিত নতুন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উদ্বোধন করতে শনিবার অযোধ্যায় পৌঁছবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি ওইদিন মন্দিরের গর্ভগৃহে যেতে পারেন বলে জানা গিয়েছে। ২২ জানুয়ারি উদ্বোধন হবে রামমন্দিরের। তার আগে ৭ দিন ধরে পালন করা হবে বিভিন্ন আচার অনুষ্ঠান। রামমন্দির উদ্বোধনের পরবর্তী দেড়মাস জুড়ে অযোধ্যায় “রামময়” উৎসব উদযাপিত হবে। শুক্রবার থেকে উৎসবের শহরের রুপ নিয়েছে অযোধ্যা। প্রধানমন্ত্রীর অযোধ্যায় আগমনের জন্য রামজন্মভূমিকে কড়া নিরাপত্তা বেষ্টনীতে এখন মুড়ে ফেলা হয়েছে। তার আগে শুক্রবার দুপুরে অযোধ্যায় যোগী আদিত্যনাথ পৌঁছেছেন। প্রধানমন্ত্রী শনিবার অযোধ্যায় আসার আগে তিনি বিমানবন্দর সহ সবকিছু নিজে খতিয়ে দেখে নিচ্ছেন। শনিবার অযোধ্যা ধাম জংশন স্টেশন ও মহর্ষি বাল্মিকীর নামাঙ্কিত নতুন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পাশপাশি, সরযূ ঘাটের সৌন্দর্যায়নের প্রকল্পেরও শিলান্যাস করবেন প্রধানমন্ত্রী। মোদি ও যোগীর অযোধ্যায় আসার আগে অযোধ্যাজুড়ে চূড়ান্ত প্রস্তুতি চলছে। রেলস্টেশন, এয়ারপোর্টের পাশাপাশি, হনুমানগড়িতেও রয়েছে তুমুল ব্য়স্ততা। রাম জন্মভূমিতে থাকছে শুধুমাত্র রামায়ণের থিম। রাম জন্মভূমির প্রত্য়েকটা বাড়ি সেজে উঠেছে একইরকম রঙে। প্রত্য়েকটা লাইটস্ট্য়ান্ড ফুলের মালা দিয়ে সাজিয়ে তোলা হয়েছে। পরিকল্পনা, এয়ারপোর্ট থেকে স্টেশন পর্যন্ত মোদির যাত্রাপথের বিভিন্ন জায়গায় উপস্থিত থাকবেন সাধু সন্তরা। করা হবে পুষ্পবৃষ্টি। নরেন্দ্র মোদির যাত্রাপথ অর্থাৎ যে পথ দিয়ে তিনি রোড শো করবেন, সেই রাস্তা শালবল্লা ও লোহার বেষ্টনী দিয়ে ঘিরে দেওয়া হয়েছে যাতে অবাঞ্চিত কেউ প্রবেশ করতে না পারে। এদিন গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক রয়েছে রামমন্দির ট্রাস্টের। ৩ জন শিল্পী রামলালার ৩ তিনধরনের ৫১ ইঞ্চির পাথরের মূর্তি তৈরি করেছেন। রামমন্দির ট্রাস্টের সম্পাদক চম্পত রাই জানিয়েছেন, রামচন্দ্রের পাঁচ বছরের শিশুরূপকে কল্পনা করে ৫১ ইঞ্চি উচ্চতার তিনটি মূর্তি তৈরি করানো হয়েছে। ঐশ্বরিক গুণে যে মূর্তিটি সেরা বলে বিবেচিত হবে এবং যে মূর্তিতে রামচন্দ্রের বাল্যবেলার মুখচ্ছবি স্পষ্ট ভাবে ফুটে উঠবে, সেটিকেই চূড়ান্ত করা হবে বলে জানান তিনি।গর্ভগৃহে রামলালার কোন মূর্তি প্রতিষ্ঠা করা হবে, তা নিয়ে শুক্রবার বৈঠকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। মন্দির আধিকারিকদের সূত্রে খবর, ১৬ জানুয়ারি, সরযূ নদীর তীরে হবে “দশবিধ” স্নান। এরপর হবে বিষ্ণু পুজো, গো মাতার উদ্দেশে প্রদান করা হবে নৈবেদ্য। মন্দির আধিকারিকদের সূত্রে খবর, ১৬ জানুয়ারি, সরযূ নদীর তীরে হবে এই “দশবিধ” স্নান। এরপর হবে বিষ্ণু পুজো, গো মাতার উদ্দেশে প্রদান করা হবে নৈবেদ্য।

অযোধ্যা জুড়ে এখন সাজো সাজো রব। আয়োজনের কোনও খামতি রাখা হচ্ছে না। রাম মন্দিরের উদ্বোধন হবে যে জাঁকজমকপূর্ণ হবে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। ব্যবসায়িক দিক থেকেও দিনটি হতে চলেছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। অনুমান, ২২ জানুয়ারি দেশে ৫০ হাজার কোটি টাকারও বেশি ব্যবসা হবে।

কনফেডারেশন অফ অল ইন্ডিয়া ট্রেডার্সের তথ্য অনুযায়ী, আগামী ২২ জানুয়ারি অযোধ্যার রাম মন্দিরে ভগবান রামলালার মূর্তি প্রতিষ্ঠা হওয়ার  দিন গোটা দেশ জুড়েই চলবে উদযাপন। আশা করা হচ্ছে দেশ জুড়ে ওই দিন ৫০ হাজার কোটি টাকার বেশি ব্যবসা হতে পারে। আশায় বুক বাঁধছেন ব্যবসায়ীরাও। কনফেডারেশন অফ অল ইন্ডিয়া ট্রেডার্সের জাতীয় সভাপতি প্রবীণ খান্ডেলওয়াল জানিয়েছেন, বিশ্ব হিন্দু পরিষদের আহ্বানে আগামী ১ জানুয়ারি থেকে সারা দেশে শ্রী রাম মন্দির উদ্বোধনের জন্য প্রচার চলবে। মানুষ যে রাম মন্দিরের উদ্বোধন ঘিরে ভীষণ ভাবে উৎসাহিত তা আমরা লক্ষ্য় করেছি। রাম মন্দিরের উদ্বোধনে দেশের সব রাজ্যের বাসিন্দাদের মধ্যে কম-বেশি উৎসাহ-উদ্দীপনা রয়েছে। আশা করা হচ্ছে রাম মন্দিরের উদ্বোধনের দিন ৫০ হাজার কোটি টাকারও বেশি ব্যবসা হবে দেশজুড়ে।

প্রবীণ খান্ডেলওয়াল জানিয়েছেন, রাম মন্দির উদ্বোধনের আগে দেশের অধিকাংশ বাজারে রামের ধ্বজা, শ্রী রামের চেলি কাপড় এবং শ্রী রামের ছবি ছাপানো মালা, লকেট, চাবির রিং, রাম মন্দিরের ছবি বিক্রি যাবে। আশা, উদ্বোধনের আগে এইগুলির ব্যাপক চাহিদাও থাকবে। রাম মন্দিরের মডেলের চাহিদা খুবই বেশি। হার্ডবোর্ড, পাইন কাঠ দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে এই সব জিনিস। রাম মন্দিরের এই মডেল ছোট-বড় সব আকারের পাওয়া যাবে। এই মডেলগুলি তৈরিতে বহু মহিলার কর্মসংস্থান হচ্ছে। স্থানীয় কারিগর, হস্তশিল্পীরা লাভের মুখ দেখছেন।

প্রবীণ খান্ডেলওয়াল আরও জানিয়েছেন, রাম মন্দিরের উদ্বোধনের দিন ব্য়বসার পাশাপাশি নয়া কর্মসংস্থানের সুযোগ নতুন করে সৃষ্টি হতে চলেছে। শ্রী রাম মন্দিরের ছবি সমন্বিত কুর্তা, টিশার্ট বিক্রি হবে। কনফেডারেশন অফ অল ইন্ডিয়া ট্রেডার্স-এর মতে, ২২ জানুয়ারি উদ্বোধনের দিন সারা দেশে বিক্রি বাড়বে মাটির প্রদীপ, রঙ্গোলি তৈরির সরঞ্জামের। ফুল বিক্রি, আলোর বিক্রির পরিমাণও প্রচুর পরিমাণে বাড়বে। সরয়ূর তীরে এখন সাজো সাজো সরব। স্টেশন থেকে বিমানবন্দর, সবকিছুতেই এখন “রামময়”। মন্দিরের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে সাজিয়ে তোলা হচ্ছে চারপাশের বাড়িঘর।


  • Tags:

Read by:

❤ Support Us
Advertisement
homepage block Mainul Hassan and Laxman Seth
Advertisement
homepage block Mainul Hassan and Laxman Seth
Advertisement
শিবভোলার দেশ শিবখোলা স | ফ | র | না | মা

শিবভোলার দেশ শিবখোলা

শিবখোলা পৌঁছলে শিলিগুড়ির অত কাছের কোন জায়গা বলে মনে হয় না।যেন অন্তবিহীন দূরত্ব পেরিয়ে একান্ত রেহাই পাবার পরিসর মিলে গেছে।

সৌরেনি আর তার সৌন্দর্যের সই টিংলিং চূড়া স | ফ | র | না | মা

সৌরেনি আর তার সৌন্দর্যের সই টিংলিং চূড়া

সৌরেনির উঁচু শিখর থেকে এক দিকে কার্শিয়াং আর উত্তরবঙ্গের সমতল দেখা যায়। অন্য প্রান্তে মাথা তুলে থাকে নেপালের শৈলমালা, বিশেষ করে অন্তুদারার পরিচিত চূড়া দেখা যায়।

মিরিক,পাইনের লিরিকাল সুমেন্দু সফরনামা
error: Content is protected !!