Advertisement
  • এই মুহূর্তে
  • এপ্রিল ৬, ২০২২

মার্কিন আধিপত্য মানবে না ভারত। রাশিয়া থেকে জ্বালানি, অস্ত্র সংগ্রহ বহাল রাখবে ।

আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক
মার্কিন আধিপত্য মানবে না ভারত। রাশিয়া থেকে জ্বালানি, অস্ত্র সংগ্রহ বহাল রাখবে ।

মঙ্গলবার মার্কিন প্রতিরক্ষা সচিব লয়েড অস্টিন রাশিয়া থেকে ভারতের অস্ত্র ও শক্তি উৎপাদনের সরঞ্জাম আমদানি কমিয়ে দেওয়ার যে দাবি তুলেছেন, এ ব্যাপারে ভারত এখনও সরাসরি তার প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেনি । ভারত তার প্রয়োজনের মাত্র ১.২ শতাংশ শক্তিজাত উৎপাদন রাশিয়া থেকে আমদানি করে । এসব জেনেও আমেরিকা দাদাগিরি জাহির করছে। গতকাল নয়াদিল্লি স্পষ্ট ভাষায় বলেছে, দেশের স্বার্থেই ভারত স্বাধীন বিদেশনীতি মেন চলে । আমরা কোন দেশ থেকে জ্বালানি কিংবা প্রয়োজনীয় অস্ত্র সংগ্রহ করব , তাতে তৃতীয়পক্ষের হস্তক্ষেপ অবাঞ্চিত ।
পন্ডিত নেহরুর আমল থেকে ভারতের বিদেশ নীতি পুরোপুরি নিরপেক্ষ। রাশিয়া তখনও পাশে ছিল, এখনও তার ভারত নীতি বদলায় নি। চিন-ভারত যুদ্ধ, পাকস্তান ও ভারতের তিন তিনটি সংঘাতে নয়াদিল্লি রাশিয়াকে পাশে পেয়েছে। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশে নয় মাস জুড়ে মুক্তি যুদ্ধ চলাকালিন রুশ সাহায্যের অভিজ্ঞতা ভারত ভোলে নি । আমেরিকা কেবল মৌখিক ভাবে ভারত ও বাংলাদেশের বিরোধীতা করেনি, নানা ভাবে পাকিস্তানকে সাহায্য করেছে ।
ভারতীয় সেনার ৭০ শতাংশ অস্ত্র পূর্বতন রাশিয়ায় তৈরি । এখন নয়াদিল্লি রাশিয়ার অত্যাধুনিক এস -৪০০ মিসিলে ডিফেন্স সিস্টেম কেনার পরিকল্পনা নিয়েছে । ইউক্রেনে রুশ হামলার পরিপ্রেক্ষিতে পেন্টাগন চাপ তৈরি করে ওই পরিকল্পনাটি বাতিল করাতে চাইছে। ভারত তার সিদ্ধান্তে অটল । বিশ্বের বূহতম শক্তি আমেরিকার চাপ সে মানবে না। নিজেও কম শক্তিধর নয়। অত্যাধুনিক অস্ত্র বানাচ্ছে। প্রয়োজনে বিদেশ থেকে সংগ্রহ করছে। আধিপত্যবাদের সামনে মাথা নত করা ভারতের স্বভাবে নেই । পররাষ্ট্র নীতি থেকে যে কোনো আভ্যন্তরিন নীতিতে সে স্বনির্ভর এবং স্বয়ংসম্পূর্ণ।


  • Tags:
❤ Support Us
error: Content is protected !!