Advertisement
  • এই মুহূর্তে মা | ঠে-ম | য় | দা | নে
  • ডিসেম্বর ২৮, ২০২৩

প্রথম টেস্টে হার ইনিংস ও ৩২ রানে। এবারও প্রোটিয়া ভূমিতে সিরিজ জেতা হচ্ছে না ভারতের

আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক
প্রথম টেস্টে হার ইনিংস ও ৩২ রানে। এবারও প্রোটিয়া ভূমিতে সিরিজ জেতা হচ্ছে না ভারতের

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে এবারও সিরিজ জয়ের স্বপ্ন পূরণ হচ্ছে না ভারতের। সিরিজের প্রথম টেস্টে হার ইনিংস ও ৩২ রানে। দ্বিতীয় ইনিংসে প্রোটিয়া বোলারদের বিরুদ্ধে দাঁড়াতেই পারলেন না ভারতীয় ব্যাটাররা। ৩৪.‌১ ওভারে গুটিয়ে গেল মাত্র ১৩১ রানে। একা লড়াই করলেন বিরাট কোহলি। প্রথম ইনিংসে ভারত তুলেছিল ২৪৫। জবাবে দক্ষিণ আফ্রিকা তোলে ৪০৮।

আগের দিনের ৫ উইকেটে ২৫৬ রান নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করে দক্ষিণ আফ্রিকা। ১৪০ রানে অপরাজিত ছিলেন ডিন এলগার। ৩ রানে অপরাজিত ছিলেন মার্কো জানসেন। এদিন সকালে দক্ষিণ আফ্রিকার অপরাজিত এই দুই ব্যাটারকে টলাতে পারেননি ভারতীয় বোলাররা। এর জন্য ভারতের কৌশলকেও দায়ী করা যায়। রোহিত শর্মা শুরুতে কয়েক ওভার বোলিং করিয়েই সরিয়ে নেন দলের দুই সেরা বোলার যশপ্রীত বুমরা ও মহম্মদ সিরাজকে। এছাড়া দ্বিতীয় নতুন বলে মধ্যাহ্নভাজের বিরতির পর আক্রমণে নিয়ে আসেন প্রসিদ্ধ কৃষ্ণ ও শার্দূল ঠাকুরকে। এরফলে রানের ফ্লাডগেট খুলে যায় দক্ষিণ আফ্রিকার।

সেশনের শুরুতেই দলের সেরা অস্ত্রদের ব্যবহার করা জুরুরি। এতে বিপক্ষ ব্যাটারদের ওপর চাপ তৈরি করা যায়। রোহিত শর্মা সেই রাস্তায় হাঁটেননি। ফলে এলগার ও জানসেনের ওপর কোনও চাপ তৈরি হয়নি। সহজেই তাঁরা রান তুলতে থাকে। দিনের শুরুতে উইকেট তুলতে না পারায় ভারতীয় বোলাররাও হতাশ হয়ে পড়েন। সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে দলকে এগিয়ে নিয়ে যান এলগার ও জানসেন। ৩৬০ রানের মাথায় জুটি ভাঙেন শার্দূল ঠাকুর। তুলে নেন এলগারকে। মাত্র ১৫ রানের জন্য দ্বিশতরান হাতছাড়া করেন। ১৮৫ রান করে আউট হন এলগার।

এলগার ফিরে গেলেও দলকে এগিয়ে নিয়ে যান মার্কো জানসেন। তাঁকে কিছুটা সহায়তা করেন জেরাল্ড কোয়েৎজে (‌১৯)‌। শেষ পর্যন্ত ৪০৮ রানে গুটিয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম ইনিংস। ৮৪ রান করে অপরাজিত থাকেন জানসেন। ভারতের হয়ে ৪ উইকেট নেন যশপ্রীত বুমরা।

১৬৩ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে আবার বিপর্যয়ে পড়ে ভারত। নান্দ্রে বার্গার, কাগিসো রাবাডা, মার্কো জানসেনদের সুইং সামলাতে পারেননি রোহিতরা। তৃতীয় ওভারেই রোহিতের (‌০)‌ স্টাম্প ছিটকে দেন রাবাডা। ষষ্ঠ ওভারে বার্গারের সুইংয়ে পরাস্ত হয়ে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন যশস্বী জয়সওয়াল (‌৫)‌। শুভমান গিল ও বিরাট কোহলি ধাক্কা সামলে দলকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন। শুভমান (‌২৬)‌ বেশিক্ষণ কোহলিকে সঙ্গ দিতে পারেননি।

শুভমান আউট হওয়ার পর ধস নামে ভারতের ইনিংসে। একের পর এক ফিরে যান শ্রেয়স আয়ার (‌৬)‌, লোকেশ রাহুল (‌৪)‌, রবিচন্দ্রন অশ্বিন (‌০)‌, শার্দূল ঠাকুর (‌২)‌, বুমরা (‌০)‌ ও সিরাজ (‌৪)‌। একা লড়াই করেন বিরাট কোহলি। শেষ পর্যন্ত ১৩১ রানে গুটিয়ে যায় ভারত। ৮২ বলে ৭৬ রান করে আউট বিরাট কোহলি। ৩৩ রানে ৪ উইকেট নেন নান্দ্রে বার্গার। ৩৬ রানে ৩ উইকেট জানসেনের। ৩২ রানে ২ উইকেট নেন কাগিসো রাবাডা।


  • Tags:

Read by:

❤ Support Us
Advertisement
Hedayetullah Golam Rasul Raktim Islam Block Advt
Advertisement
Hedayetullah Golam Rasul Raktim Islam Block Advt
Advertisement
শিবভোলার দেশ শিবখোলা স | ফ | র | না | মা

শিবভোলার দেশ শিবখোলা

শিবখোলা পৌঁছলে শিলিগুড়ির অত কাছের কোন জায়গা বলে মনে হয় না।যেন অন্তবিহীন দূরত্ব পেরিয়ে একান্ত রেহাই পাবার পরিসর মিলে গেছে।

সৌরেনি আর তার সৌন্দর্যের সই টিংলিং চূড়া স | ফ | র | না | মা

সৌরেনি আর তার সৌন্দর্যের সই টিংলিং চূড়া

সৌরেনির উঁচু শিখর থেকে এক দিকে কার্শিয়াং আর উত্তরবঙ্গের সমতল দেখা যায়। অন্য প্রান্তে মাথা তুলে থাকে নেপালের শৈলমালা, বিশেষ করে অন্তুদারার পরিচিত চূড়া দেখা যায়।

মিরিক,পাইনের লিরিকাল সুমেন্দু সফরনামা
error: Content is protected !!